ঢাকা ১২:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

রাজশাহীর বাঘায় নাজমুল হত্যা মামলার রায় ৬ জনের যাবজ্জীবন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:২০:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২২ ৩১ বার পড়া হয়েছে

ছবিঃ আসামিদের কারাগারে নেওয়া হচ্ছে

আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

রাজশাহী প্রতিনিধিঃ
রাজশাহীর বাঘায় নাজমুল হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করা হয়েছে। এই রায়ে ছয়জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। একই সাথে তাদের প্রত্যেকের ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। এছাড়াও দোষ প্রমান না হওয়ায় এ মামলার অপর আরো ১৫ আসামীকে খালাস দেয়া হয়েছে।
আজ বৃহস্পতিবার (৩ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক অনুপ কুমার এই রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় আসামীরা ও মামলার বাদীপক্ষ আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামীরা হলো, জেলার বাঘা উপজেলার সুলতানপুর গ্রামের মিন্টু আলী, রানা, পানা, আরিফ হোসেন, শরিফ হোসেন ও পার্শ্ববর্তী নাটোর জেলার লালপুর উপজেলার মনিহার গ্রামের আরজেদ আলী।

এ সময় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এনতাজুল হক বাবু বলেন, এ মামলার আসামী ২৫ জন। তবে তাদের মধ্যে চারজন শিশু। সম্পুরক অভিযোগপত্র দিয়ে ওই চারজনকে শিশু আদালতে বিচারের জন্য পাঠানো হয়। যা বিচারাধীন রয়েছে।

বাকি ২১ জনের বিচার হয়েছে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে। যাদের মধ্যে ছয়জনকে যাবজ্জীবন ও ১৫ জনকে খালাস দিয়েছে আদালত। তিনি আরো বলেন, ভাগ্নিকে উত্তক্তের প্রতিবাদের জের ধরে ২০২০ সালের ১৪ জানুয়ারি বিকেলে বাঘার সুলতানপুর গ্রামে নাজমুল হোসেনকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় নাজমুলের পিতা আজিজুর রহমান বাদী হয়ে বাঘা থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলার তদন্ত শেষে পুলিশ ২৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে। তবে চারজনের বয়স কম হওয়ায় তাদের বিচার শিশু আদালতে চলছে বলেও জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

রাজশাহীর বাঘায় নাজমুল হত্যা মামলার রায় ৬ জনের যাবজ্জীবন

আপডেট সময় : ০২:২০:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২২

রাজশাহী প্রতিনিধিঃ
রাজশাহীর বাঘায় নাজমুল হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করা হয়েছে। এই রায়ে ছয়জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। একই সাথে তাদের প্রত্যেকের ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। এছাড়াও দোষ প্রমান না হওয়ায় এ মামলার অপর আরো ১৫ আসামীকে খালাস দেয়া হয়েছে।
আজ বৃহস্পতিবার (৩ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক অনুপ কুমার এই রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় আসামীরা ও মামলার বাদীপক্ষ আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামীরা হলো, জেলার বাঘা উপজেলার সুলতানপুর গ্রামের মিন্টু আলী, রানা, পানা, আরিফ হোসেন, শরিফ হোসেন ও পার্শ্ববর্তী নাটোর জেলার লালপুর উপজেলার মনিহার গ্রামের আরজেদ আলী।

এ সময় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এনতাজুল হক বাবু বলেন, এ মামলার আসামী ২৫ জন। তবে তাদের মধ্যে চারজন শিশু। সম্পুরক অভিযোগপত্র দিয়ে ওই চারজনকে শিশু আদালতে বিচারের জন্য পাঠানো হয়। যা বিচারাধীন রয়েছে।

বাকি ২১ জনের বিচার হয়েছে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে। যাদের মধ্যে ছয়জনকে যাবজ্জীবন ও ১৫ জনকে খালাস দিয়েছে আদালত। তিনি আরো বলেন, ভাগ্নিকে উত্তক্তের প্রতিবাদের জের ধরে ২০২০ সালের ১৪ জানুয়ারি বিকেলে বাঘার সুলতানপুর গ্রামে নাজমুল হোসেনকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় নাজমুলের পিতা আজিজুর রহমান বাদী হয়ে বাঘা থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলার তদন্ত শেষে পুলিশ ২৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে। তবে চারজনের বয়স কম হওয়ায় তাদের বিচার শিশু আদালতে চলছে বলেও জানান তিনি।