ঢাকা ১০:২০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজশাহীতে ৩৪ লাখ ২৭ হাজার টাকা ডাকাতির মূলহোতাসহ গ্রেপ্তার ৩!

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:১১:৫৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ অগাস্ট ২০২২ ১১ বার পড়া হয়েছে

রাজশাহীতে ডাকাতির মূলহোতাসহ ৩ জন গ্রেপ্তার

আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

রাজশাহীতে ৩৪ লাখ ২৭ হাজার টাকা ডাকাতির মূলহোতাসহ গ্রেপ্তার ৩!

এম এম মামুন, রাজশাহী:
রাজশাহীতে ৩৪ লাখ ২৭ হাজার টাকা ডাকাতির মূলহোতাসহ গ্রেপ্তার ৩! রাজশাহী মহানগরীর পোস্টাল একাডেমির সামনে ৩৪ লাখ ২৭ হাজার টাকা ডাকাতির ঘটনায় সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের মূল হোতাসহ আরও ৩ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে আরএমপি’র শাহমখদুম থানা পুলিশ। এসময় আসামিদের কাছ থেকে ডাকাতি হওয়া আরও ৫ লক্ষ ৮৫ হাজার ১২৫ টাকা উদ্ধার হয়েছে।
এই মামলায় এখন পর্যন্ত ৯ আসামিকে গ্রেপ্তাররসহ ২২ লক্ষ ৭০ হাজার ৬৫ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।
বৃহ্স্পতিবার (২৫ আগস্ট) সকাল ১০ টার দিকে আরএমপি সদরদপ্তর কনফারেন্স রুমে রাজশাহী মেট্রোপলিটন লিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, ডাকাতির মূল হোতা রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানার মহিষবাথান উত্তরপাড়ার মোকলেছুর রহমানের ছেলে নুর আলম নুরু (২৩), অ্যাম্বুলেন্স চালক পবা থানার বীর গোয়ালিয়ার মকবুল হুসাইনের ছেলে মুহাইমিনুল ইসলাম সবুজ (২৯) এবং রাজশাহী জেলার দূর্গাপুর থানার দাওকান্দি ব্রিজপাড়ার আব্দুর রশীদের ছেলে কামরুজ্জামান লিটন (২৬)।

উল্লেখ্য যে, গত ২১ আগস্ট ভোর সাড়ে ৫ টায় নগরীর শাহমখদুম থানার পোস্টাল একাডেমির সামনে পান ব্যবাসায়ীর ৩৪ লক্ষ ২৭ হাজার টাকা ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আরএমপির পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিকের সার্বিক দিকনির্দেশনায় সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের ৬ সদস্যকে ১৬ লক্ষ ৮৪ হাজার ৯৪০ টাকা ও দেশীয় অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করে। সেই সাথে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত অ্যাম্বুলেন্সটি জব্দ করে। পুলিশ কমিশনারের নির্দেশে ডাকাতি হওয়া অবশিষ্ট টাকা উদ্ধার ও মুল হোতা-সহ সহযোগী আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রাখে শাহমখদুম থানা পুলিশ।

এরই ধারাবাহিকতায় পুলিশ কমিশনারের নির্দেশ মোতাবেক আরএমপি’র সাইবার ক্রাইম ইউনিট তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে আসামিদের অবস্থান নির্ণয় করে। পরবর্তীতে শাহমখদুম ক্রাইম বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মুহাম্মদ সাইফুল ইসলামের তত্ত্বাবধানে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার নূরে আলমের নেতৃত্বে শাহশখদুম থানার অফিসার ইনচার্জ মেহেদী হাসান, ইন্সপেক্টর (তদন্ত) নজরুল ইসলাম ও শাহমখদুম থানা পুলিশের একটি টিম গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে রাজশাহী জেলার গোদাগাড়ী ও দূর্গাপুর থানা এবং রাজশাহী মহানগরীর কর্ণহার থানা এলাকা হতে আসামিদের গ্রেফতার করে। এসময় আসামিদের কাছ থেকে ডাকাতি হওয়া আরও ৫ লক্ষ ৮৫ হাজার ১২৫ টাকা উদ্ধার হয়। অবশিষ্ট টাকা উদ্ধার ও সহযোগী আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে। গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

রাজশাহীতে ৩৪ লাখ ২৭ হাজার টাকা ডাকাতির মূলহোতাসহ গ্রেপ্তার ৩!

আপডেট সময় : ১১:১১:৫৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ অগাস্ট ২০২২

রাজশাহীতে ৩৪ লাখ ২৭ হাজার টাকা ডাকাতির মূলহোতাসহ গ্রেপ্তার ৩!

এম এম মামুন, রাজশাহী:
রাজশাহীতে ৩৪ লাখ ২৭ হাজার টাকা ডাকাতির মূলহোতাসহ গ্রেপ্তার ৩! রাজশাহী মহানগরীর পোস্টাল একাডেমির সামনে ৩৪ লাখ ২৭ হাজার টাকা ডাকাতির ঘটনায় সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের মূল হোতাসহ আরও ৩ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে আরএমপি’র শাহমখদুম থানা পুলিশ। এসময় আসামিদের কাছ থেকে ডাকাতি হওয়া আরও ৫ লক্ষ ৮৫ হাজার ১২৫ টাকা উদ্ধার হয়েছে।
এই মামলায় এখন পর্যন্ত ৯ আসামিকে গ্রেপ্তাররসহ ২২ লক্ষ ৭০ হাজার ৬৫ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।
বৃহ্স্পতিবার (২৫ আগস্ট) সকাল ১০ টার দিকে আরএমপি সদরদপ্তর কনফারেন্স রুমে রাজশাহী মেট্রোপলিটন লিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, ডাকাতির মূল হোতা রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানার মহিষবাথান উত্তরপাড়ার মোকলেছুর রহমানের ছেলে নুর আলম নুরু (২৩), অ্যাম্বুলেন্স চালক পবা থানার বীর গোয়ালিয়ার মকবুল হুসাইনের ছেলে মুহাইমিনুল ইসলাম সবুজ (২৯) এবং রাজশাহী জেলার দূর্গাপুর থানার দাওকান্দি ব্রিজপাড়ার আব্দুর রশীদের ছেলে কামরুজ্জামান লিটন (২৬)।

উল্লেখ্য যে, গত ২১ আগস্ট ভোর সাড়ে ৫ টায় নগরীর শাহমখদুম থানার পোস্টাল একাডেমির সামনে পান ব্যবাসায়ীর ৩৪ লক্ষ ২৭ হাজার টাকা ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আরএমপির পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিকের সার্বিক দিকনির্দেশনায় সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের ৬ সদস্যকে ১৬ লক্ষ ৮৪ হাজার ৯৪০ টাকা ও দেশীয় অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করে। সেই সাথে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত অ্যাম্বুলেন্সটি জব্দ করে। পুলিশ কমিশনারের নির্দেশে ডাকাতি হওয়া অবশিষ্ট টাকা উদ্ধার ও মুল হোতা-সহ সহযোগী আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রাখে শাহমখদুম থানা পুলিশ।

এরই ধারাবাহিকতায় পুলিশ কমিশনারের নির্দেশ মোতাবেক আরএমপি’র সাইবার ক্রাইম ইউনিট তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে আসামিদের অবস্থান নির্ণয় করে। পরবর্তীতে শাহমখদুম ক্রাইম বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মুহাম্মদ সাইফুল ইসলামের তত্ত্বাবধানে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার নূরে আলমের নেতৃত্বে শাহশখদুম থানার অফিসার ইনচার্জ মেহেদী হাসান, ইন্সপেক্টর (তদন্ত) নজরুল ইসলাম ও শাহমখদুম থানা পুলিশের একটি টিম গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে রাজশাহী জেলার গোদাগাড়ী ও দূর্গাপুর থানা এবং রাজশাহী মহানগরীর কর্ণহার থানা এলাকা হতে আসামিদের গ্রেফতার করে। এসময় আসামিদের কাছ থেকে ডাকাতি হওয়া আরও ৫ লক্ষ ৮৫ হাজার ১২৫ টাকা উদ্ধার হয়। অবশিষ্ট টাকা উদ্ধার ও সহযোগী আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে। গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।