ঢাকা ০১:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

রাজশাহীতে সয়াবিন তেলের দাম লিটারে কমেছে ৫ টাকা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০১:৫৭:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৯ মার্চ ২০২২ ২৩ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

রাজশাহীতে সয়াবিন তেলের দাম লিটারে কমেছে ৫ টাকা

এম এম মামুন, রাজশাহী ব্যুরো:
রাজশাহীতে সয়াবিন তেলের দাম লিটারে কমেছে ৫ টাকা। ১৬৫ টাকা লিটারের সয়াবিন তেল এখন বিক্রি করা হচ্ছে ১৬০ টাকায়।
আজ বুধবার (৯ মার্চ ) রাজশাহী মহানগরীর সাহেব বাজার এলকার বিভিন্ন মুদির দোকান ঘুরে দেখা যায় এমন চিত্র।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, তেলের দাম কমেছে। ক্রেতাদের চাহিদা মত তা দেওয়া হবে। ব্যবসায়ীর কাছে ৫ লিটারের তেলের বোতল সরবরাহ নেই। এক থেকে দুই লিটার করে দিয়ে ক্রেতাদের চাহিদা পূরণ করা হচ্ছে।

এদিকে, খোলা ও বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম কমলেও স্থিতিশীল রয়েছে সব ধরনের সবজি, ডাল, চাল ও মুদি পণ্যের দাম।
বাজারে বেগুন বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকা কেজিতে, শিম বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকা , কাচা মরিচ ৮০ টাকা, করলা ১২০ টাকা, গাজর ৩০ টাকা, আলু ২০ টাকা এবং পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৫৫ টাকা কেজি দরে।

সবজি ব্যবসায়ীরা বলছেন, সবজি উৎপাদন বাড়লেই কমে যাবে সব ধরনের সবজির দাম। তাছাড়া ১০ রোজা পর্যন্ত দাম এ রকমই থাকবে ।বাজার করতে আসা ক্রেতা মাসুমা বলেন, আমরা ছাত্রী মেসে থেকে পড়াশোনা করি বাড়ি থেকে যে পরিমান টাকা পাঠায় তাতে বর্তমান বাজারে আমাদের খাওয়ার সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। এছাড়া বাজারে চাল, ডিম,মুরগি এবং অন্যান্য পন্যের দাম স্থিতিশীল রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

রাজশাহীতে সয়াবিন তেলের দাম লিটারে কমেছে ৫ টাকা

আপডেট সময় : ০১:৫৭:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৯ মার্চ ২০২২

রাজশাহীতে সয়াবিন তেলের দাম লিটারে কমেছে ৫ টাকা

এম এম মামুন, রাজশাহী ব্যুরো:
রাজশাহীতে সয়াবিন তেলের দাম লিটারে কমেছে ৫ টাকা। ১৬৫ টাকা লিটারের সয়াবিন তেল এখন বিক্রি করা হচ্ছে ১৬০ টাকায়।
আজ বুধবার (৯ মার্চ ) রাজশাহী মহানগরীর সাহেব বাজার এলকার বিভিন্ন মুদির দোকান ঘুরে দেখা যায় এমন চিত্র।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, তেলের দাম কমেছে। ক্রেতাদের চাহিদা মত তা দেওয়া হবে। ব্যবসায়ীর কাছে ৫ লিটারের তেলের বোতল সরবরাহ নেই। এক থেকে দুই লিটার করে দিয়ে ক্রেতাদের চাহিদা পূরণ করা হচ্ছে।

এদিকে, খোলা ও বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম কমলেও স্থিতিশীল রয়েছে সব ধরনের সবজি, ডাল, চাল ও মুদি পণ্যের দাম।
বাজারে বেগুন বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকা কেজিতে, শিম বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকা , কাচা মরিচ ৮০ টাকা, করলা ১২০ টাকা, গাজর ৩০ টাকা, আলু ২০ টাকা এবং পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৫৫ টাকা কেজি দরে।

সবজি ব্যবসায়ীরা বলছেন, সবজি উৎপাদন বাড়লেই কমে যাবে সব ধরনের সবজির দাম। তাছাড়া ১০ রোজা পর্যন্ত দাম এ রকমই থাকবে ।বাজার করতে আসা ক্রেতা মাসুমা বলেন, আমরা ছাত্রী মেসে থেকে পড়াশোনা করি বাড়ি থেকে যে পরিমান টাকা পাঠায় তাতে বর্তমান বাজারে আমাদের খাওয়ার সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। এছাড়া বাজারে চাল, ডিম,মুরগি এবং অন্যান্য পন্যের দাম স্থিতিশীল রয়েছে।