ঢাকা ০৮:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
দুর্নীতির বাইরে সাংবাদিক নেই, এমপির বক্তব্যে ক্ষুদ্ধ সাংবাদিক মহল! ঝিনাইগাতীতে অভ্যন্তরীন বোরো ধান ও চাল সংগ্রহ উদ্বোধন! শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে বন্য হাতি তাড়াতে টর্চ লাইট বিতরণ! রাণীশংকৈলে পৌর কাউন্সিলরের স্ত্রী মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত! বাগাতিপাড়ায় হয়ে গেল পুকুরে ছিপ দিয়ে মাছ শিকার উৎসব! নাটোরে ছিনতাইকৃত অটোরিক্সা উদ্ধারসহ ৪ ছিনতাইকারী গ্রেফতার! শেরপুরে হেলমেট বিতরণ করলেন পুলিশ সুপার! বালিয়াকান্দিতে দুধ দিয়ে গোসল করলেন নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান সাধন! নাটোরে ২০ মে ছিনতাইয়ের ঘটনায় ৪ যুবক গ্রেফতার! নলডাঙ্গায় এক তরুনীকে ধর্ষণ,থানায় মামলা,অভিযুক্তরা পলাতক!

বিজয়ী প্রার্থী সমর্থককে মারপিট; পরাজিত প্রার্থী সহ গ্রেফতার ২; জামিন দিয়েছে আদালত!

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:৩৪:০৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১০ মে ২০২৪ ৭৯ বার পড়া হয়েছে

Collected

আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বিজয়ী প্রার্থী সমর্থককে মারপিট; পরাজিত প্রার্থী সহ গ্রেফতার ২; জামিন দিয়েছে আদালত!

নাটোর প্রতিনিধিঃ
নাটোরে বিজয়ী প্রার্থীর সমর্থককে তুলে নিয়ে গিয়ে মারপিট করার অভিযোগে পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী জামিল হোসেন মিলন ও তার গাড়ি চালক বাশারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। প্রথম দফায় অনুষ্ঠিত নাটোর সদর উপজেলা পরিষদের বিজয়ী চেয়ারম্যান প্রার্থী শরিফুল ইসলাম রমজানের সমর্থক রুবেল হোসেনকে উঠিয়ে নিয়ে গিয়ে মারপিট করার অভিযোগ এনে সদর থানায় মিলন সহ ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন আহত রুবেলের পিতা আলম গাজী। ওই মামলা দায়েরের পর পুলিশ বৃহস্পতিবার রাতে শহরের হাফরাস্তা তালতলা এলাকার নিজ বাড়ি থেকে মিলনকে পুলিশ গ্রেফতার করে। জামিল হোসেন মিলন ৮ মে সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আনারস প্রতিকে অংশ নিয়ে পরাজিত হন।

থানায় দায়েরকৃত অভিযোগ সুত্রে জানাযায়, নাটোর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজান এর কাপ পিরিচ মার্কায় ভোট করেন তালতলা হাফরাস্তা এলাকার আলম গাজীর ছেলে রুবেল । এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী জামিলুর রহমান মিলন ও তার সমর্থকরা রুবেলকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায় মিলনের চেম্বারে। সেখানে বেধড়ক মারপিট করা হয় রুবেলকে। এসময় হাত, পা ও মাথায় গুরুতর জখম করা হয়। নাটোর ডিবি ও সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মিলনের চেম্বার থেকে রুবেলকে গুরুতর জখম অবস্থায় উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

বিজয়ী প্রার্থী শরিফুল ইসলাম রমজান বলেন, একজন প্রার্থী কর্তৃক নির্বাচন পরবর্তী এধরনের সহিংসতা কোনভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। তিনি ও তার সমর্থকরা আমার এক সমর্থককে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধর করে জখম করেছে। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে। তিনি এঘটার জড়িত দোষীদের যথোপযুক্ত বিচারের দাবি জানান।

নাটোরের পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মিলনকে প্রধান আসামী করে ১২জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করেছেন ভুক্তভোগির পিতা। সেই মামলায় মিলন ও তার গাড়ী চালককে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলায় অভিযুক্ত অন্যদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এদিকে দুপুর ২টার দিকে পুলিশ গ্রেফতারকৃত পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী জামিল হোসেন মিলন ও তার গাড়ি চালক বাশারকে নাটোরের জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট শানু আকন্দের আদালতে সোপর্দ করে। এসময় তাদের জামিনের আবেদন জানানো হলে আদালতের বিচারক শুনানী শেষে জামিল হোসেন মিলন ও তার গাড়ি চালক বাশারের জামিন মঞ্জুর করেন।
আদালতের জিআরও (পুলিশ পরিদর্শক) খাদেমুল ইসলাম গ্রেফতারকৃতদের জামিন মজুরের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বিজয়ী প্রার্থী সমর্থককে মারপিট; পরাজিত প্রার্থী সহ গ্রেফতার ২; জামিন দিয়েছে আদালত!

আপডেট সময় : ০২:৩৪:০৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১০ মে ২০২৪

বিজয়ী প্রার্থী সমর্থককে মারপিট; পরাজিত প্রার্থী সহ গ্রেফতার ২; জামিন দিয়েছে আদালত!

নাটোর প্রতিনিধিঃ
নাটোরে বিজয়ী প্রার্থীর সমর্থককে তুলে নিয়ে গিয়ে মারপিট করার অভিযোগে পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী জামিল হোসেন মিলন ও তার গাড়ি চালক বাশারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। প্রথম দফায় অনুষ্ঠিত নাটোর সদর উপজেলা পরিষদের বিজয়ী চেয়ারম্যান প্রার্থী শরিফুল ইসলাম রমজানের সমর্থক রুবেল হোসেনকে উঠিয়ে নিয়ে গিয়ে মারপিট করার অভিযোগ এনে সদর থানায় মিলন সহ ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন আহত রুবেলের পিতা আলম গাজী। ওই মামলা দায়েরের পর পুলিশ বৃহস্পতিবার রাতে শহরের হাফরাস্তা তালতলা এলাকার নিজ বাড়ি থেকে মিলনকে পুলিশ গ্রেফতার করে। জামিল হোসেন মিলন ৮ মে সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আনারস প্রতিকে অংশ নিয়ে পরাজিত হন।

থানায় দায়েরকৃত অভিযোগ সুত্রে জানাযায়, নাটোর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজান এর কাপ পিরিচ মার্কায় ভোট করেন তালতলা হাফরাস্তা এলাকার আলম গাজীর ছেলে রুবেল । এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী জামিলুর রহমান মিলন ও তার সমর্থকরা রুবেলকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায় মিলনের চেম্বারে। সেখানে বেধড়ক মারপিট করা হয় রুবেলকে। এসময় হাত, পা ও মাথায় গুরুতর জখম করা হয়। নাটোর ডিবি ও সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মিলনের চেম্বার থেকে রুবেলকে গুরুতর জখম অবস্থায় উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

বিজয়ী প্রার্থী শরিফুল ইসলাম রমজান বলেন, একজন প্রার্থী কর্তৃক নির্বাচন পরবর্তী এধরনের সহিংসতা কোনভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। তিনি ও তার সমর্থকরা আমার এক সমর্থককে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধর করে জখম করেছে। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে। তিনি এঘটার জড়িত দোষীদের যথোপযুক্ত বিচারের দাবি জানান।

নাটোরের পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মিলনকে প্রধান আসামী করে ১২জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করেছেন ভুক্তভোগির পিতা। সেই মামলায় মিলন ও তার গাড়ী চালককে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলায় অভিযুক্ত অন্যদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এদিকে দুপুর ২টার দিকে পুলিশ গ্রেফতারকৃত পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী জামিল হোসেন মিলন ও তার গাড়ি চালক বাশারকে নাটোরের জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট শানু আকন্দের আদালতে সোপর্দ করে। এসময় তাদের জামিনের আবেদন জানানো হলে আদালতের বিচারক শুনানী শেষে জামিল হোসেন মিলন ও তার গাড়ি চালক বাশারের জামিন মঞ্জুর করেন।
আদালতের জিআরও (পুলিশ পরিদর্শক) খাদেমুল ইসলাম গ্রেফতারকৃতদের জামিন মজুরের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।