ঢাকা ০১:১৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

বাগাতিপাড়ায় নির্মাণের ৫ মাসেই ভেঙে গেল ইউড্রেন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৩২:৪৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৪ এপ্রিল ২০২২ ১৭ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বাগাতিপাড়ায় নির্মাণের ৫ মাসেই ভেঙে গেল ইউড্রেন

বাগাতিপাড়া (নাটোর) প্রতিনিধিঃ
বাগাতিপাড়ায় নির্মাণের ৫ মাসেই ভেঙে গেল ইউড্রেন। নাটোরের বাগাতিপাড়ায় এলজিএসপি প্রকল্পের একটি ইউড্রেন নির্মাণের ৫ মাসেই ভেঙে গেছে। উপজেলার জামনগর ইউনিয়নের দেবনগর গ্রামের মজনুর বাড়ির কাছের ওই ইউড্রেনটি প্রায় ২৫ দিন আগে ভেঙে গেছে। কাজের মান নিম্ন হওয়ায় এত অল্প সময়ের মধ্যে এটি ভেঙে গেছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।

জামনগর ইউনিয়ন পরিষদ সূত্রে জানা গেছে, এলজিএসপি প্রকল্পের আওতায় ১লাখ ২০ হাজার টাকা ব্যয়ে সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুসের সময় ওই ইউড্রেনটি নির্মাণ করা হয়। বাগাতিপাড়ার ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স শুভ এন্টারপ্রাইজ ওই কাজটি করেন।
স্থানীয়রা জানায়, বর্ষার সময় ওই এলাকার কয়েকশত বিঘা জমি জলাবদ্ধতার শিকার হয়। তাই এই জলাবদ্ধতার হাত থেকে রক্ষার জন্য স্থানীয় চেয়ারম্যানের নিকট একটি কালভার্ট নির্মাণের দাবি করা হয়। একাকাবাসীর দাবীর প্রেক্ষিতে ২০২১ সালের নভেম্বর মাসে এই ইউড্রেনটি নির্মাণ করা হয়। কিন্তু সেটি ৫ মাস না-যেতেই ২০২২ সালের মার্চ মাসের প্রথম দিকে উপরের স্লাবের মাঝে ভেঙে যায়। আর যে কোন সময় পুরো ইউড্রেনটি ভেঙে দুর্ঘটনার পাশাপাশি কয়েকটি এলাকার মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে যেতে পারে। তাই দ্রুত ইউড্রেনটি মেরামতের দাবি এলাকাবাসীর।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, দেবনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পেছনের রাস্তার প্রায় ২০০ গজ দক্ষিণে ওই ইউড্রেনের উপরের স্লাবের কিছু অংশ ভেঙে গেছে। এবং কিছু অংশে ফাটল ধরেছে যেকোন সময় সেই অংশও ভেঙে যেতে পারে। ভেঙে গেলে ওই রাস্তার যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে যাবে।

মেসার্স শুভ এন্টারপ্রাইজ এর স্বত্বাধিকারী আব্দুল গনি বলেন, এলজিএসপির ওই কাজটি আমার লাইসেন্সের নামে সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুস করেছেন। আমি এর কিছু জানি না।

জামনগর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুস বলেন, ভারী যানচলাচলের জন্য হয়তো ভেঙে গেছে। দ্রুত মেরামত করে দেওয়া হবে।

জামনগর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান গোলাম রাব্বানী বলেন, আমি ওই ড্রেনটি ভাঙার ব্যাপারে জানতাম না। সরেজমিনে দেখে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বাগাতিপাড়ায় নির্মাণের ৫ মাসেই ভেঙে গেল ইউড্রেন

আপডেট সময় : ০৫:৩২:৪৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৪ এপ্রিল ২০২২

বাগাতিপাড়ায় নির্মাণের ৫ মাসেই ভেঙে গেল ইউড্রেন

বাগাতিপাড়া (নাটোর) প্রতিনিধিঃ
বাগাতিপাড়ায় নির্মাণের ৫ মাসেই ভেঙে গেল ইউড্রেন। নাটোরের বাগাতিপাড়ায় এলজিএসপি প্রকল্পের একটি ইউড্রেন নির্মাণের ৫ মাসেই ভেঙে গেছে। উপজেলার জামনগর ইউনিয়নের দেবনগর গ্রামের মজনুর বাড়ির কাছের ওই ইউড্রেনটি প্রায় ২৫ দিন আগে ভেঙে গেছে। কাজের মান নিম্ন হওয়ায় এত অল্প সময়ের মধ্যে এটি ভেঙে গেছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।

জামনগর ইউনিয়ন পরিষদ সূত্রে জানা গেছে, এলজিএসপি প্রকল্পের আওতায় ১লাখ ২০ হাজার টাকা ব্যয়ে সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুসের সময় ওই ইউড্রেনটি নির্মাণ করা হয়। বাগাতিপাড়ার ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স শুভ এন্টারপ্রাইজ ওই কাজটি করেন।
স্থানীয়রা জানায়, বর্ষার সময় ওই এলাকার কয়েকশত বিঘা জমি জলাবদ্ধতার শিকার হয়। তাই এই জলাবদ্ধতার হাত থেকে রক্ষার জন্য স্থানীয় চেয়ারম্যানের নিকট একটি কালভার্ট নির্মাণের দাবি করা হয়। একাকাবাসীর দাবীর প্রেক্ষিতে ২০২১ সালের নভেম্বর মাসে এই ইউড্রেনটি নির্মাণ করা হয়। কিন্তু সেটি ৫ মাস না-যেতেই ২০২২ সালের মার্চ মাসের প্রথম দিকে উপরের স্লাবের মাঝে ভেঙে যায়। আর যে কোন সময় পুরো ইউড্রেনটি ভেঙে দুর্ঘটনার পাশাপাশি কয়েকটি এলাকার মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে যেতে পারে। তাই দ্রুত ইউড্রেনটি মেরামতের দাবি এলাকাবাসীর।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, দেবনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পেছনের রাস্তার প্রায় ২০০ গজ দক্ষিণে ওই ইউড্রেনের উপরের স্লাবের কিছু অংশ ভেঙে গেছে। এবং কিছু অংশে ফাটল ধরেছে যেকোন সময় সেই অংশও ভেঙে যেতে পারে। ভেঙে গেলে ওই রাস্তার যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে যাবে।

মেসার্স শুভ এন্টারপ্রাইজ এর স্বত্বাধিকারী আব্দুল গনি বলেন, এলজিএসপির ওই কাজটি আমার লাইসেন্সের নামে সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুস করেছেন। আমি এর কিছু জানি না।

জামনগর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুস বলেন, ভারী যানচলাচলের জন্য হয়তো ভেঙে গেছে। দ্রুত মেরামত করে দেওয়া হবে।

জামনগর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান গোলাম রাব্বানী বলেন, আমি ওই ড্রেনটি ভাঙার ব্যাপারে জানতাম না। সরেজমিনে দেখে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।