ঢাকা ০৫:১১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

বাগমারায় আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলায় স্বামী-স্ত্রী গ্রেপ্তার

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:৪০:৪৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ এপ্রিল ২০২২ ২০ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বাগমারায় আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলায়
স্বামী-স্ত্রী গ্রেপ্তার

এম এম মামুন, রাজশাহী ব্যুরো:
রাজশাহীর বাগমারায় আত্মহত্যা প্ররোচনা মামলায় স্বামী-স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। নিহত নারীর নাম শাহিদা বেওয়া (৭০)। ঘরে মায়ের লাশ রেখে স্বাভাবিক চলাফেরা ও আচরণ করছিলেন বড় ছেলে হামিদুল ইসলাম ও তার স্ত্রী আকলিমা খাতুন। এদিকে ওই বৃদ্ধার ছোট ছেলে বাড়িতে এসে মাকে ডাকাডাকি করলেও কোন সাড়া পাননি। মাকে দেখতে না পেয়ে সন্দেহ হয় তার। এক পর্যায়ে ঘরের ভেতরে গেলে মায়ের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পান।

পরে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে। সেই সাথে নিহতের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে। এমন হৃদয় বিদায়ক ঘটনাটি ঘটে রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার যোগীপাড়া গ্রামে গত ৩১ মার্চ।

ওই ঘটনায় নিহত শাহিদা বেওয়ার ভাইয়ের ছেলে ইকবাল বাদী হয়ে হামিদুল ও তার স্ত্রী আকলিমা খাতুনের বিরুদ্ধে আত্মহত্যা প্ররোচনার একটি মামলা দায়ের করে। মায়ের মৃত্যুর সেই ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত বড় ছেলে হামিদুল ইসলাম ও তার স্ত্রী আকলিমা খাতুন পলাতক ছিল।

রোববার যোগীপাড়া ইউনিয়নের বীরকুৎসা রাজবাড়ির সামনে হামিদুল ইসলাম ও তাঁর স্ত্রী আকলিমা খাতুন ঘুরাফেরা করছিল। এমন সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাব ৫ এর একটি টহল দল তাদেরকে গ্রেপ্তার করে। পরে তাদেরকে বাগমারা থানার পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। অপরদিকে যোগীপাড়া ইউনিয়নের বীরকৎসা গ্রামের মোসলেম আলীর ছেলে মোনাক্কা মাসুদ নামের গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বাগামার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাক আহম্মেদ জানান, আসামিদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে পাঠানো হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বাগমারায় আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলায় স্বামী-স্ত্রী গ্রেপ্তার

আপডেট সময় : ০২:৪০:৪৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ এপ্রিল ২০২২

বাগমারায় আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলায়
স্বামী-স্ত্রী গ্রেপ্তার

এম এম মামুন, রাজশাহী ব্যুরো:
রাজশাহীর বাগমারায় আত্মহত্যা প্ররোচনা মামলায় স্বামী-স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। নিহত নারীর নাম শাহিদা বেওয়া (৭০)। ঘরে মায়ের লাশ রেখে স্বাভাবিক চলাফেরা ও আচরণ করছিলেন বড় ছেলে হামিদুল ইসলাম ও তার স্ত্রী আকলিমা খাতুন। এদিকে ওই বৃদ্ধার ছোট ছেলে বাড়িতে এসে মাকে ডাকাডাকি করলেও কোন সাড়া পাননি। মাকে দেখতে না পেয়ে সন্দেহ হয় তার। এক পর্যায়ে ঘরের ভেতরে গেলে মায়ের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পান।

পরে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে। সেই সাথে নিহতের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে। এমন হৃদয় বিদায়ক ঘটনাটি ঘটে রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার যোগীপাড়া গ্রামে গত ৩১ মার্চ।

ওই ঘটনায় নিহত শাহিদা বেওয়ার ভাইয়ের ছেলে ইকবাল বাদী হয়ে হামিদুল ও তার স্ত্রী আকলিমা খাতুনের বিরুদ্ধে আত্মহত্যা প্ররোচনার একটি মামলা দায়ের করে। মায়ের মৃত্যুর সেই ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত বড় ছেলে হামিদুল ইসলাম ও তার স্ত্রী আকলিমা খাতুন পলাতক ছিল।

রোববার যোগীপাড়া ইউনিয়নের বীরকুৎসা রাজবাড়ির সামনে হামিদুল ইসলাম ও তাঁর স্ত্রী আকলিমা খাতুন ঘুরাফেরা করছিল। এমন সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাব ৫ এর একটি টহল দল তাদেরকে গ্রেপ্তার করে। পরে তাদেরকে বাগমারা থানার পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। অপরদিকে যোগীপাড়া ইউনিয়নের বীরকৎসা গ্রামের মোসলেম আলীর ছেলে মোনাক্কা মাসুদ নামের গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বাগামার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাক আহম্মেদ জানান, আসামিদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে পাঠানো হয়েছে।