ঢাকা ০১:০৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

প্রকৃতিতে মুক্তির স্বাদ পেলো ৮টি ঘুঘু পাখি

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৫৫:৫২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৯ মার্চ ২০২২ ২৬ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

প্রকৃতিতে মুক্তির স্বাদ পেলো ৮টি ঘুঘু পাখি

ফজলে রাব্বী, নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

প্রকৃতিতে মুক্তির স্বাদ পেয়েছে ৮টি ঘুঘু পাখি, সেই সাথে উদ্ধার হয়েছে, খাঁচা ২টি কারেন্টজাল ও ফাঁসজাল।

বন্যপ্রানী পরিদর্শক আবদুল্লাহ আস সাদিকের দিক নির্দেশনায়, ববন্যপ্রানী অপরাধ দমন ইউনিট সদস্য শেখ জসিমের তত্তাবধানে মঙ্গলবার (৮ মার্চ) বিবিসিএফ অন্তর্ভূক্ত সংগঠন ওয়াইল্ডলাইফ মিশনের সহযোগিতায় সাতক্ষীরা জেলার কালিগঞ্জ উপজেলার ধলবাড়ীয়া ইউনিয়নের রত্নেশ্বরপুর, উকশা, গোবিন্দপুর ও মুড়াগাছা গ্রামে পাখি শিকার প্রতিরোধ কার্যক্রম পরিচালনা পূর্বক শিকারে ব্যবহৃত ৮টি ঘুঘু, ১০টি খাঁচা-ফাঁদ ও ২টি কারেন্টজাল ও ফাঁসজাল  উদ্ধার করা হয়েছে।

এ সময়ে মুড়াগাছা গ্রামের বিষে গাজীরর ছেলে
পাখি শিকারী মতি ও রত্নেশ্বরপুর গ্রামের শিকারী রাশেদুল ইসলাম ভবিষ্যতে পাখি শিকার করবে না এই মর্মে লিখিত ভাবে অঙ্গিকার করে। তবে অন্যান্য শিকারীরা ফাঁদ, শিকারকৃত পাখি ও সরঞ্জাম ফেলে রেখে পালিয়ে যান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা সামাজিক বনবিভাগের ফরেস্টার মোহাম্মদ আলি, ওয়াইল্ডলাইফ মিশনের কালিগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধি শেখ মোখলেছুর রহমান, দাউদ মোড়ল, কমান্ডার শাহারিয়ার, আতিক হোসেন, রবিউল ইসলাম ও বোরহান উদ্দিন।

পরে পাখি শিকারের সরঞ্জাম ধবংস করা হয় এবং পাখিগুলোকে প্রকৃতিতে অবমুক্ত হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

প্রকৃতিতে মুক্তির স্বাদ পেলো ৮টি ঘুঘু পাখি

আপডেট সময় : ০৫:৫৫:৫২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৯ মার্চ ২০২২

প্রকৃতিতে মুক্তির স্বাদ পেলো ৮টি ঘুঘু পাখি

ফজলে রাব্বী, নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

প্রকৃতিতে মুক্তির স্বাদ পেয়েছে ৮টি ঘুঘু পাখি, সেই সাথে উদ্ধার হয়েছে, খাঁচা ২টি কারেন্টজাল ও ফাঁসজাল।

বন্যপ্রানী পরিদর্শক আবদুল্লাহ আস সাদিকের দিক নির্দেশনায়, ববন্যপ্রানী অপরাধ দমন ইউনিট সদস্য শেখ জসিমের তত্তাবধানে মঙ্গলবার (৮ মার্চ) বিবিসিএফ অন্তর্ভূক্ত সংগঠন ওয়াইল্ডলাইফ মিশনের সহযোগিতায় সাতক্ষীরা জেলার কালিগঞ্জ উপজেলার ধলবাড়ীয়া ইউনিয়নের রত্নেশ্বরপুর, উকশা, গোবিন্দপুর ও মুড়াগাছা গ্রামে পাখি শিকার প্রতিরোধ কার্যক্রম পরিচালনা পূর্বক শিকারে ব্যবহৃত ৮টি ঘুঘু, ১০টি খাঁচা-ফাঁদ ও ২টি কারেন্টজাল ও ফাঁসজাল  উদ্ধার করা হয়েছে।

এ সময়ে মুড়াগাছা গ্রামের বিষে গাজীরর ছেলে
পাখি শিকারী মতি ও রত্নেশ্বরপুর গ্রামের শিকারী রাশেদুল ইসলাম ভবিষ্যতে পাখি শিকার করবে না এই মর্মে লিখিত ভাবে অঙ্গিকার করে। তবে অন্যান্য শিকারীরা ফাঁদ, শিকারকৃত পাখি ও সরঞ্জাম ফেলে রেখে পালিয়ে যান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা সামাজিক বনবিভাগের ফরেস্টার মোহাম্মদ আলি, ওয়াইল্ডলাইফ মিশনের কালিগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধি শেখ মোখলেছুর রহমান, দাউদ মোড়ল, কমান্ডার শাহারিয়ার, আতিক হোসেন, রবিউল ইসলাম ও বোরহান উদ্দিন।

পরে পাখি শিকারের সরঞ্জাম ধবংস করা হয় এবং পাখিগুলোকে প্রকৃতিতে অবমুক্ত হয়।