ঢাকা ০৫:২২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

পরিত্যক্ত প্লাস্টিকের বোতল দিয়ে ডাস্টবিন তৈরি করেছেন প্রতিবন্ধী ‘মাহফুজ’

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:২৪:১৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২ ৬৫ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নলডাঙ্গা (নাটোর) প্রতিনিধিঃ
ছয় মাস বয়সে হঠ্যৎ অসুস্থ হয়ে দুই পায়ের শক্তি হারিয়ে ফেলেন মাহফুজ। তখন থেকে লাঠিতে ভর করেই চলাচল করতে হয় তাকে। তবুও পৃথিবীর সবচেয়ে উঁচু পর্বতশৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্ট জয় করার স্বপ্ন দেখেন তিনি। সে স্বপ্ন পূরণ না হলেও অদম্য ইচ্ছাশক্তি নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন প্রতিবন্ধী মাহফুজ। মানুষের ফেলে দেওয়া প্লাস্টিকের বোতল দিয়ে ডাস্টবিন তৈরি করে রীতিমতো তাক লাগিয়ে দিয়েছেন তিনি।
জানা গেছে, নাটোর জেলার নলডাঙ্গা উপজেলার ঠাকুর লক্ষ্মীকোল মোঃ সুজাদুর রহমানের ছেলে মাহফুজুর রহমান। তিনি কিছু স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্য। তারপর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করার জন্য ছুটে বেড়ায় নাটোরের বিভিন্ন প্রান্তরে। রাস্তায় ছুড়ে ফেলা চিপ্সের প্যাক, সিগারেটের প্যাক, পলিথিন, ছেঁড়া জুতা, ঔষধের খোসা পরিষ্কার করেন তিনি।
মাহফুজ বলেন, একদিন চিন্তা করেন মানুষের উপকারে আসবে এমন কিছু তৈরি করতে হবে মানুষের ফেলে দেওয়া পরিত্যক্ত প্লাস্টিকের বোতল দিয়ে। তারপর থেকে বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষের ফেলে দেওয়া বোতল সংগ্রহ শুরু করেন। এরপর দুই হাজার ৫০০টি বোতল সংগ্রহ করেন। পরে বোতল, গুনার তার আর বাঁশের বাতা দিয়ে দিয়ে তৈরি করি ২০টি ডাস্টবিন। আর এসব ডাস্টবিন নাটোরের বিভিন্ন হাটে-বাজারে বিনামূল্যে স্থাপন করছেন মাহফুজ।
মাহফুজ আরও বলেন, এসব প্লাস্টিক বোতল পরিবেশের অনেক ক্ষতিকর। প্লাস্টিক মাটির সঙ্গে মিশতে সময় লাগে ৫’শ বছরের অধিক সময়। আমরা এসব বোতল ফেলে না দিয়ে নিজেরাই ডাস্টবিন তৈরি করে নিজের কাজে ব্যবহার করতে পারি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

পরিত্যক্ত প্লাস্টিকের বোতল দিয়ে ডাস্টবিন তৈরি করেছেন প্রতিবন্ধী ‘মাহফুজ’

আপডেট সময় : ১২:২৪:১৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২

নলডাঙ্গা (নাটোর) প্রতিনিধিঃ
ছয় মাস বয়সে হঠ্যৎ অসুস্থ হয়ে দুই পায়ের শক্তি হারিয়ে ফেলেন মাহফুজ। তখন থেকে লাঠিতে ভর করেই চলাচল করতে হয় তাকে। তবুও পৃথিবীর সবচেয়ে উঁচু পর্বতশৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্ট জয় করার স্বপ্ন দেখেন তিনি। সে স্বপ্ন পূরণ না হলেও অদম্য ইচ্ছাশক্তি নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন প্রতিবন্ধী মাহফুজ। মানুষের ফেলে দেওয়া প্লাস্টিকের বোতল দিয়ে ডাস্টবিন তৈরি করে রীতিমতো তাক লাগিয়ে দিয়েছেন তিনি।
জানা গেছে, নাটোর জেলার নলডাঙ্গা উপজেলার ঠাকুর লক্ষ্মীকোল মোঃ সুজাদুর রহমানের ছেলে মাহফুজুর রহমান। তিনি কিছু স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্য। তারপর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করার জন্য ছুটে বেড়ায় নাটোরের বিভিন্ন প্রান্তরে। রাস্তায় ছুড়ে ফেলা চিপ্সের প্যাক, সিগারেটের প্যাক, পলিথিন, ছেঁড়া জুতা, ঔষধের খোসা পরিষ্কার করেন তিনি।
মাহফুজ বলেন, একদিন চিন্তা করেন মানুষের উপকারে আসবে এমন কিছু তৈরি করতে হবে মানুষের ফেলে দেওয়া পরিত্যক্ত প্লাস্টিকের বোতল দিয়ে। তারপর থেকে বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষের ফেলে দেওয়া বোতল সংগ্রহ শুরু করেন। এরপর দুই হাজার ৫০০টি বোতল সংগ্রহ করেন। পরে বোতল, গুনার তার আর বাঁশের বাতা দিয়ে দিয়ে তৈরি করি ২০টি ডাস্টবিন। আর এসব ডাস্টবিন নাটোরের বিভিন্ন হাটে-বাজারে বিনামূল্যে স্থাপন করছেন মাহফুজ।
মাহফুজ আরও বলেন, এসব প্লাস্টিক বোতল পরিবেশের অনেক ক্ষতিকর। প্লাস্টিক মাটির সঙ্গে মিশতে সময় লাগে ৫’শ বছরের অধিক সময়। আমরা এসব বোতল ফেলে না দিয়ে নিজেরাই ডাস্টবিন তৈরি করে নিজের কাজে ব্যবহার করতে পারি।