ঢাকা ০৬:৪৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

নাটোর হাসপাতালের নিরাপত্তা কর্মীর ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে কর্ম বিরতী পালন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:১৩:১৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ নভেম্বর ২০২১ ২৩১ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নাটোর প্রতিনিধিঃ
নাটোর সদর হাসপাতালের নিরাপত্তা কর্মি সুজন কুমার দাসের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে দুই ঘন্টার কর্ম বিরতী পালন করেছে হাসপাতালের চিকিৎসক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।
বুধবার বেলা ১০ টা থেকে এই কর্ম বিরতি পালন শুরু করেন তারা। তবে এ সময় জরুরী বিভাগ ও অন্ত বিভাগে সেবা কার্যক্রম চালু ছিল। এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা না হলে পরবর্তিতে এই বিষয়ে কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।
নাটোর সদর হাসপাতালের প্রধান সহকারী স্বপ্না ঠাকুর জানান, মঙ্গলবার বিকেলে হাসপাতালে দায়িত্ব পালনরত অবস্থায় কয়েকজন সন্ত্রাসী নিরাপত্তা কর্মি সুজন কুমার দাসের ওপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে সন্ত্রাসীরা হামলা চালায়। এ সময় তাদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে সুজনের ডান পায়ে রক্তাক্ত জখম হয়। ঘটনাটি আশেপাশের লোকজন দেখতে পেয়ে এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে আহত অবস্থায় সুজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে নিরাপত্তা কর্মী সুজন দাস নাটোর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ও আশংকামুক্ত রয়েছে। সুজন নাটোর সদর উপজেলার ছাতনী গ্রামের গৌর চন্দ্র দাসের ছেলে।
সদর হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ পরিতোষ রায় বলেন, নাটোর সদর হাসপাতালের ডাক্তার সহ সকল কর্মচারী নিস্বার্থভাবে রোগীদের সেবা প্রদান করে থাকেন। এর পরও ডাক্তার ও কর্মচারীদের ওপর হামলা ও লাঞ্চিত করার ঘটনা ঘটে। নিরাপত্তা কর্মি সুজন কুমার দাসের ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় হাসপাতালের সকল ডাক্তার কর্মচারী বিক্ষুব্ধ। হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার সহ দৃষ্টান্তমুলক বিচার দাবী জানানো হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

নাটোর হাসপাতালের নিরাপত্তা কর্মীর ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে কর্ম বিরতী পালন

আপডেট সময় : ১২:১৩:১৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ নভেম্বর ২০২১

নাটোর প্রতিনিধিঃ
নাটোর সদর হাসপাতালের নিরাপত্তা কর্মি সুজন কুমার দাসের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে দুই ঘন্টার কর্ম বিরতী পালন করেছে হাসপাতালের চিকিৎসক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।
বুধবার বেলা ১০ টা থেকে এই কর্ম বিরতি পালন শুরু করেন তারা। তবে এ সময় জরুরী বিভাগ ও অন্ত বিভাগে সেবা কার্যক্রম চালু ছিল। এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা না হলে পরবর্তিতে এই বিষয়ে কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।
নাটোর সদর হাসপাতালের প্রধান সহকারী স্বপ্না ঠাকুর জানান, মঙ্গলবার বিকেলে হাসপাতালে দায়িত্ব পালনরত অবস্থায় কয়েকজন সন্ত্রাসী নিরাপত্তা কর্মি সুজন কুমার দাসের ওপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে সন্ত্রাসীরা হামলা চালায়। এ সময় তাদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে সুজনের ডান পায়ে রক্তাক্ত জখম হয়। ঘটনাটি আশেপাশের লোকজন দেখতে পেয়ে এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে আহত অবস্থায় সুজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে নিরাপত্তা কর্মী সুজন দাস নাটোর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ও আশংকামুক্ত রয়েছে। সুজন নাটোর সদর উপজেলার ছাতনী গ্রামের গৌর চন্দ্র দাসের ছেলে।
সদর হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ পরিতোষ রায় বলেন, নাটোর সদর হাসপাতালের ডাক্তার সহ সকল কর্মচারী নিস্বার্থভাবে রোগীদের সেবা প্রদান করে থাকেন। এর পরও ডাক্তার ও কর্মচারীদের ওপর হামলা ও লাঞ্চিত করার ঘটনা ঘটে। নিরাপত্তা কর্মি সুজন কুমার দাসের ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় হাসপাতালের সকল ডাক্তার কর্মচারী বিক্ষুব্ধ। হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার সহ দৃষ্টান্তমুলক বিচার দাবী জানানো হচ্ছে।