ঢাকা ০২:২৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

নাটোরের দু’টি সরকারী অফিসের সেবা কার্যক্রমে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:২১:৩৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ নভেম্বর ২০২১ ২২১ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নাটোর প্রতিনিধিঃ
নাটোরে সরকারী সেবা সংক্রান্ত এক বিশেষ গণশুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে এই গণশুনানি অনুষ্ঠানে জেলার পাসপোর্ট অফিস ও বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটির (বিআরটিএ) সেবা কার্যক্রমে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয় বিশিষ্টজনরা।
জেলা পলিসি ফোরাম আয়োজিত এই বিশেষ গণশুনানি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ। ফোরামের সভাপতি অধ্যক্ষ আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে ও সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান টুটুলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত শুনানি অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ আশরাফুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) নাদিম সারওয়ার ও দুর্নীতি দমন কমিশনের উপ-সহকারী পরিচালক সুদীপ কুমার চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অংশীদারিত্বে এবং ইউরোপীয়ান ইউনিয়নের অর্থায়নে ব্রিটিশ কাউন্সিল কর্তৃক বাস্তবায়িত প্লাটফর্মস ফর ডায়ালগ (পিফরডি) প্রকল্পের অধীনে জেলা পলিসি ফোরাম কর্তৃক আয়োজিত এই গণশুনানীতে সরকারী সেবা সংক্রান্ত প্রতিবন্ধকতা ও সমস্যা তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন শিক্ষাবিদ অলোক মৈত্র, সাংবাদিক নবীউর রহমান পিপলু, রেজাউল করিম রেজা, নাজমুল হাসান, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ নেতা চিত্তরঞ্জন সাহা সহ বিভিন্ন পর্যায়ের নাগরিকবৃন্দ।
এই বিশেষ গণশুনানীতে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, সরকারী সেবা প্রদানকারী নাটোরের আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস এবং বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটির (বিআরটিএ) সেবা কার্যক্রমে অনিয়মই যেন নিয়মে পরিনত হয়েছে। এই দুথটি অফিসে দালালদের দৌরত্বে অতিষ্ট জনসাধারন। ঘুষ ছাড়া কোন কাজ হয়না। যিনি ঘুষ দেননা তিনি নানা ভোগান্তি সহ হয়রানির শিকার হন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত অধিকাংশ অতিথি এধরনের অভিযোগ উত্থাপন করে সুরাহার জন্য জেলা প্রশাসকের দৃষ্টি আকর্ষন করেন।
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ অভিযোগগুলি খতিয়ে দেখা সহ সংশ্লিষ্ট দপ্তর সমুহের কর্মকতার্দের সাথে কথা বলবেন বলে জানিয়ে বলেন, এধরনের অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
পরে এবিষয়ে জানতে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটির (বিআরটিএ) নাটোর অফিসের সহকারী পরিচালক (ইঞ্জিঃ) মোঃ রাশেদুজ্জামানের ০১৫৫০৫১৬৪৯ নম্বর মোবাইল ফোন ও ০৭৭১৬১০৬৪ নম্বর ফোনে এবং নাটোর পাসপোর্ট আঞ্চলিক অফিসের সহকারী পরিচালক আশরাফ আলীর ০১৭১১-৩২৫৩৫২ নম্বরে একাধিক ফোন করা হয়। কিন্তু রিসিভ না করায় তাদের বক্তব্য পাওয়াযায়নি।
এদিকে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সরকারী সেবা সংক্রান্ত এক বিশেষ গণশুনানি অনুষ্ঠানে ৩৮ জন ও জুম অনলাইনে ১৮ জন বিশিষ্ট নাগরিক এই গণশুনানিতে অংশগ্রগণ করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

নাটোরের দু’টি সরকারী অফিসের সেবা কার্যক্রমে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৫:২১:৩৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ নভেম্বর ২০২১

নাটোর প্রতিনিধিঃ
নাটোরে সরকারী সেবা সংক্রান্ত এক বিশেষ গণশুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে এই গণশুনানি অনুষ্ঠানে জেলার পাসপোর্ট অফিস ও বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটির (বিআরটিএ) সেবা কার্যক্রমে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয় বিশিষ্টজনরা।
জেলা পলিসি ফোরাম আয়োজিত এই বিশেষ গণশুনানি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ। ফোরামের সভাপতি অধ্যক্ষ আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে ও সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান টুটুলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত শুনানি অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ আশরাফুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) নাদিম সারওয়ার ও দুর্নীতি দমন কমিশনের উপ-সহকারী পরিচালক সুদীপ কুমার চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অংশীদারিত্বে এবং ইউরোপীয়ান ইউনিয়নের অর্থায়নে ব্রিটিশ কাউন্সিল কর্তৃক বাস্তবায়িত প্লাটফর্মস ফর ডায়ালগ (পিফরডি) প্রকল্পের অধীনে জেলা পলিসি ফোরাম কর্তৃক আয়োজিত এই গণশুনানীতে সরকারী সেবা সংক্রান্ত প্রতিবন্ধকতা ও সমস্যা তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন শিক্ষাবিদ অলোক মৈত্র, সাংবাদিক নবীউর রহমান পিপলু, রেজাউল করিম রেজা, নাজমুল হাসান, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ নেতা চিত্তরঞ্জন সাহা সহ বিভিন্ন পর্যায়ের নাগরিকবৃন্দ।
এই বিশেষ গণশুনানীতে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, সরকারী সেবা প্রদানকারী নাটোরের আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস এবং বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটির (বিআরটিএ) সেবা কার্যক্রমে অনিয়মই যেন নিয়মে পরিনত হয়েছে। এই দুথটি অফিসে দালালদের দৌরত্বে অতিষ্ট জনসাধারন। ঘুষ ছাড়া কোন কাজ হয়না। যিনি ঘুষ দেননা তিনি নানা ভোগান্তি সহ হয়রানির শিকার হন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত অধিকাংশ অতিথি এধরনের অভিযোগ উত্থাপন করে সুরাহার জন্য জেলা প্রশাসকের দৃষ্টি আকর্ষন করেন।
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ অভিযোগগুলি খতিয়ে দেখা সহ সংশ্লিষ্ট দপ্তর সমুহের কর্মকতার্দের সাথে কথা বলবেন বলে জানিয়ে বলেন, এধরনের অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
পরে এবিষয়ে জানতে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটির (বিআরটিএ) নাটোর অফিসের সহকারী পরিচালক (ইঞ্জিঃ) মোঃ রাশেদুজ্জামানের ০১৫৫০৫১৬৪৯ নম্বর মোবাইল ফোন ও ০৭৭১৬১০৬৪ নম্বর ফোনে এবং নাটোর পাসপোর্ট আঞ্চলিক অফিসের সহকারী পরিচালক আশরাফ আলীর ০১৭১১-৩২৫৩৫২ নম্বরে একাধিক ফোন করা হয়। কিন্তু রিসিভ না করায় তাদের বক্তব্য পাওয়াযায়নি।
এদিকে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সরকারী সেবা সংক্রান্ত এক বিশেষ গণশুনানি অনুষ্ঠানে ৩৮ জন ও জুম অনলাইনে ১৮ জন বিশিষ্ট নাগরিক এই গণশুনানিতে অংশগ্রগণ করেন।