ঢাকা ০১:২০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

চরফ্যাশনে মাদ্রাসা সুপারের অশালীন ও আপত্তিকর কথোপকথন ভাইরাল

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:২২:১৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০২১ ৬৮ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধিঃ
ভোলা জেলার চরফ্যাশনের দুলারহাট থানার মুজিনগর ইউনিয়নের চর মোহাতাহার দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওলানা ফখরুল ইসলামের এক নারীর সাথে অশ্লীল কথোপকথনের আপত্তিকর ফোন আলাপ ফাঁস হয়েছে।
সোমবার রাতে আবরান তাহসান তরিক নামের এক ব্যক্তির ফেসবুক আইডিতে নারীর সাথে মাদ্রাসা সুপারের ফোন আলাপের ১৩ মিনিটের অডিও রেকডিং পোষ্ট করলে মুহুর্তের মধ্যেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরলে ভাইরাল হয়ে যায়। শুরু হয় নারীর সাথে অশ্লীল কথোপকথনের নিয়ে সমোলাচনার ঝড়।
এঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) চরফ্যাসন উপজেলার সকল মাদরাসার সুপার ও সহকারি শিক্ষকদের নিয়ে গঠিত জমিয়াতুল মোর্দারেছিন চরফ্যাসন শাখার সদস্য পদ থেকে ওই মাদ্রাসার সুপার মাওলানা ফখর উদ্দিনকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে বলে সাধারন সম্পাদক অধ্যাপক কামরুজ্জামান নিশ্চিত করেছেন।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরা অডিও ক্লিপ পর্যালোচনা করে জানা যায়, চর মোতাহার দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওলানা ফকর উদ্দিন নারীর সাথে ফের শারিরিক সম্পর্কে লিপ্ত হতে চান বিনিময়ে তাকে স্মার্ট ফোন উপহার দিবেন এবং নারীকে এক সময় কুয়াকাটা একটি হোটেলে নিয়ে রাত্রী যাপন করেছেন। মুঠোফোনে তাদের রোমান্টিক মুহুর্তের কথা ও নারীর সাথে তার একাধিকবার শারিরিক সম্পর্ক হয়েছে এবং ওই নারীর বোনের সাথেও তার শারিরিক সম্পর্ক হয়েছে কিন্তু তিনি তার সাথে শারীরিক সম্পর্ক করে অনেক আনন্দ পেয়েছেন ফের তার সাথে তিনি শারিরিক সম্পর্ক করতে চান।
এমন কথোপকথনের বর্ননা দেন ওই নারীকে। মাওলানা ফকর উদ্দিনকে প্রচুর ভালোবাসা দিতে হবে প্রস্তাবসহ বিভিন্ন ধরনের অশ্লীল আপত্তিকর ফোন আলাপ করতে শোনা যায়। এবং ওই নারীকে তার মাদ্রাসায় ভর্তি হওয়ার জন্য অনুরোধ করেন তিনি।
মাওলানা ফকর উদ্দিন জানান, নারীর সাথে আমার ফোন আলাপের অডিও রেকর্ডিং আমি শুনেছি। স্থানীয় মন্নান মিয়ার ছেলে রনির সাথে জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে তাই প্রতিপক্ষ আমাকে ঘায়েল করতে এডিট করে ওই অডিও ক্লিপটি করা হয়েছে। তবে কিছুদিন আগে আমার ফোন হারিয়ে যায় ওই ফোন থেকে আমার ভয়েজ নিয়ে এডিট করে ওই অডিও ক্লিপ করা হয়েছে বলে আমার ধারনা। কোন নারীর সাথে আমার এমন ফোন আলাপ হয়নি। আমার বিরুদ্ধে এমন অপপ্রচারকারীদের বিরুদ্ধে আমি মামলা দায়ের প্রস্ততি নিচ্ছি।
চর মোতাহার দাখিল মাদ্রাসার ম্যানিজিং কমিটির সভাপতি মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, সুপার বিষয়টি তাকে মুঠোফোনে জানিয়েছেন। অডিও ক্লিপটি শুনে আসল রহস্যে বুঝা যাবে।
মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মহিউদ্দিন জানান, বিষয়টি আমার জানা নাই তবে ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

চরফ্যাশনে মাদ্রাসা সুপারের অশালীন ও আপত্তিকর কথোপকথন ভাইরাল

আপডেট সময় : ০৩:২২:১৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০২১

চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধিঃ
ভোলা জেলার চরফ্যাশনের দুলারহাট থানার মুজিনগর ইউনিয়নের চর মোহাতাহার দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওলানা ফখরুল ইসলামের এক নারীর সাথে অশ্লীল কথোপকথনের আপত্তিকর ফোন আলাপ ফাঁস হয়েছে।
সোমবার রাতে আবরান তাহসান তরিক নামের এক ব্যক্তির ফেসবুক আইডিতে নারীর সাথে মাদ্রাসা সুপারের ফোন আলাপের ১৩ মিনিটের অডিও রেকডিং পোষ্ট করলে মুহুর্তের মধ্যেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরলে ভাইরাল হয়ে যায়। শুরু হয় নারীর সাথে অশ্লীল কথোপকথনের নিয়ে সমোলাচনার ঝড়।
এঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) চরফ্যাসন উপজেলার সকল মাদরাসার সুপার ও সহকারি শিক্ষকদের নিয়ে গঠিত জমিয়াতুল মোর্দারেছিন চরফ্যাসন শাখার সদস্য পদ থেকে ওই মাদ্রাসার সুপার মাওলানা ফখর উদ্দিনকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে বলে সাধারন সম্পাদক অধ্যাপক কামরুজ্জামান নিশ্চিত করেছেন।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরা অডিও ক্লিপ পর্যালোচনা করে জানা যায়, চর মোতাহার দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওলানা ফকর উদ্দিন নারীর সাথে ফের শারিরিক সম্পর্কে লিপ্ত হতে চান বিনিময়ে তাকে স্মার্ট ফোন উপহার দিবেন এবং নারীকে এক সময় কুয়াকাটা একটি হোটেলে নিয়ে রাত্রী যাপন করেছেন। মুঠোফোনে তাদের রোমান্টিক মুহুর্তের কথা ও নারীর সাথে তার একাধিকবার শারিরিক সম্পর্ক হয়েছে এবং ওই নারীর বোনের সাথেও তার শারিরিক সম্পর্ক হয়েছে কিন্তু তিনি তার সাথে শারীরিক সম্পর্ক করে অনেক আনন্দ পেয়েছেন ফের তার সাথে তিনি শারিরিক সম্পর্ক করতে চান।
এমন কথোপকথনের বর্ননা দেন ওই নারীকে। মাওলানা ফকর উদ্দিনকে প্রচুর ভালোবাসা দিতে হবে প্রস্তাবসহ বিভিন্ন ধরনের অশ্লীল আপত্তিকর ফোন আলাপ করতে শোনা যায়। এবং ওই নারীকে তার মাদ্রাসায় ভর্তি হওয়ার জন্য অনুরোধ করেন তিনি।
মাওলানা ফকর উদ্দিন জানান, নারীর সাথে আমার ফোন আলাপের অডিও রেকর্ডিং আমি শুনেছি। স্থানীয় মন্নান মিয়ার ছেলে রনির সাথে জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে তাই প্রতিপক্ষ আমাকে ঘায়েল করতে এডিট করে ওই অডিও ক্লিপটি করা হয়েছে। তবে কিছুদিন আগে আমার ফোন হারিয়ে যায় ওই ফোন থেকে আমার ভয়েজ নিয়ে এডিট করে ওই অডিও ক্লিপ করা হয়েছে বলে আমার ধারনা। কোন নারীর সাথে আমার এমন ফোন আলাপ হয়নি। আমার বিরুদ্ধে এমন অপপ্রচারকারীদের বিরুদ্ধে আমি মামলা দায়ের প্রস্ততি নিচ্ছি।
চর মোতাহার দাখিল মাদ্রাসার ম্যানিজিং কমিটির সভাপতি মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, সুপার বিষয়টি তাকে মুঠোফোনে জানিয়েছেন। অডিও ক্লিপটি শুনে আসল রহস্যে বুঝা যাবে।
মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মহিউদ্দিন জানান, বিষয়টি আমার জানা নাই তবে ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হবে।