ঢাকা ০২:২০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

গুরুদাসপুরে তিন শতাধিক পাখি আকাশে অবমুক্ত করলেন ইউএনও

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:৪৩:০১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১ ১২৭ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নাটোর প্রতিনিধিঃ
নাটোরের গুরুদাসপুরে শিকারীদের ফাঁদ থেকে প্রায় তিন শতাধিক বক পাখি উদ্ধার করে আকাশে অবমুক্ত করেছেন গুরুদাসপুরের ইউএনও মো.তমাল হোসেন।
মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) ভোর সাড়ে ৫টা থেকে শুরু করে সকাল ৮টা পর্যন্ত চলনবিল অধ্যুষিত উপজেলার খুবজীপুর, বিলশা, হরদোমা, দিঘদারিয়া, যোগেন্দ্রনগর, পৌরসদরের বিলসহ প্রায় ১০টি মাঠে পরিবেশ কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে অভিযান পরিচালনা করেন ইউএনও তমাল হোসেন। অভিযানে পাখি শিকার করা ১৫টি ফাঁদ ধ্বংস করা হয় এবং ১৫টি শিকারী বক উদ্ধার করে অবমুক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রায় দুই শতাধিক বক বস্তা বন্দি ও শতাধিক বক খাচায় বন্দী অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পরে মাঠের মধ্যেই পরিবেশ কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে বক পাখি গুলো মুক্ত আকাশে অবমুক্ত করেন ইউএনও। তবে ইউএনও‘র উপস্থিতি টের পেয়ে পাখি শিকারীরা সবাই পালিয়ে যাওয়ায় তাদের আটক করা সম্ভব হয়নি। এসময় মেহেদী হাসান তানিম, রাসেল আহম্দে, নাজমুল হাসান, সাদেক হাসান ,মনির হোসেন প্রমুখ পরিবেশ কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
ইউএনও তমাল হোসেন বলেন, জীববৈচিত্র রক্ষায় উপজেলা প্রশাসন নিয়মিত উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় অভিযান পরিচালনা করছেন। আজ মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার বিভিন্ন মাঠে গিয়ে প্রায় তিন শতাধিক বক পাখি উদ্ধার করে মুক্ত আকাশে অবমুক্ত করা হয়েছে। তাছাড়াও উপজেলা ব্যাপী পাখি শিকার বন্ধ করতে বিভিন্ন প্রচার-প্রচারণা চালানো হচ্ছে। উপজেলা প্রশাসনের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

গুরুদাসপুরে তিন শতাধিক পাখি আকাশে অবমুক্ত করলেন ইউএনও

আপডেট সময় : ০৭:৪৩:০১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১

নাটোর প্রতিনিধিঃ
নাটোরের গুরুদাসপুরে শিকারীদের ফাঁদ থেকে প্রায় তিন শতাধিক বক পাখি উদ্ধার করে আকাশে অবমুক্ত করেছেন গুরুদাসপুরের ইউএনও মো.তমাল হোসেন।
মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) ভোর সাড়ে ৫টা থেকে শুরু করে সকাল ৮টা পর্যন্ত চলনবিল অধ্যুষিত উপজেলার খুবজীপুর, বিলশা, হরদোমা, দিঘদারিয়া, যোগেন্দ্রনগর, পৌরসদরের বিলসহ প্রায় ১০টি মাঠে পরিবেশ কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে অভিযান পরিচালনা করেন ইউএনও তমাল হোসেন। অভিযানে পাখি শিকার করা ১৫টি ফাঁদ ধ্বংস করা হয় এবং ১৫টি শিকারী বক উদ্ধার করে অবমুক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রায় দুই শতাধিক বক বস্তা বন্দি ও শতাধিক বক খাচায় বন্দী অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পরে মাঠের মধ্যেই পরিবেশ কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে বক পাখি গুলো মুক্ত আকাশে অবমুক্ত করেন ইউএনও। তবে ইউএনও‘র উপস্থিতি টের পেয়ে পাখি শিকারীরা সবাই পালিয়ে যাওয়ায় তাদের আটক করা সম্ভব হয়নি। এসময় মেহেদী হাসান তানিম, রাসেল আহম্দে, নাজমুল হাসান, সাদেক হাসান ,মনির হোসেন প্রমুখ পরিবেশ কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
ইউএনও তমাল হোসেন বলেন, জীববৈচিত্র রক্ষায় উপজেলা প্রশাসন নিয়মিত উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় অভিযান পরিচালনা করছেন। আজ মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার বিভিন্ন মাঠে গিয়ে প্রায় তিন শতাধিক বক পাখি উদ্ধার করে মুক্ত আকাশে অবমুক্ত করা হয়েছে। তাছাড়াও উপজেলা ব্যাপী পাখি শিকার বন্ধ করতে বিভিন্ন প্রচার-প্রচারণা চালানো হচ্ছে। উপজেলা প্রশাসনের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।