ঢাকা ০৫:০৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

ইসলামিক বক্তার নির্যাতনে আহত শিক্ষার্থী হাসপাতালে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:২৫:১৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ মার্চ ২০২২ ১৮ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ইসলামিক বক্তার নির্যাতনে আহত শিক্ষার্থী হাসপাতালে

এম এম মামুন, রাজশাহী ব্যুরো:
ইসলামিক বক্তার নির্যাতনে আহত শিক্ষার্থী হাসপাতালে। বহুল আলোচিত-সমালোচিত ইসলামিক বক্তা আব্দুর রাজ্জাক বিন ইউসুফের নাতির বিরুদ্ধে টাকা চুরির অভিযোগ করায় চতুর্থ শ্রেণীর মাদ্রাসার এক শিক্ষার্থীকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে আব্দুর রাজ্জাক বিন ইউসুফের মেজো ছেলে ইসলামিক বক্তা আব্দুর রহমানের বিরুদ্ধে।
নির্যাতনের শিকার ওই শিক্ষার্থীকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে । তবে এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ করা হলেও এখনো কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।
নির্যাতনের শিকার ওই শিশুটির পরিবারের সদস্যরা জানান, ১২ বছর বয়সী রামিম ইসলাম রিফাতকে কোরআনের হাফেজ করার স্বপ্ন নিয়ে রাজশাহী পবার ডাংঙ্গীপাড়া এলাকার আল- জামিথআহ ,আস সালাফিয়া মাদ্রাসা ভর্তি করেন তাঁর পরিবার। কিন্তু মাদ্রাসাটির অধ্যক্ষ আব্দুর রাজ্জাক বিন ইউসুফের নাতির বিরুদ্ধে টাকা চুরি অভিযোগ করায় পাশবিক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন রামিম।বর্তমানে ওই শিশুটি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২৪ নং ওয়ার্ডে অসহ্য ব্যথার যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন।
নির্যাতনের শিকার রামিমের বাবা মেরাজুল ইসলাম রিন্টু জানান, গত ১৬ মার্চ ওই মাদ্রসার দুই শিক্ষার্থীর টাকা হারানোর ঘটনা ঘটে। এসময় আব্দুর রহমানের ভাইয়ের ছেলে এবং ওই মাদ্রসার চতুর্থ শ্রেণীর শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে টাকা চুরির অভিযোগ তুলেন রামিম। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে পাইপ দিয়ে বেপরোয়া পেটাতে থাকেন আব্দুর রহমান।এসময় বেশ কয়েকবার রামিম জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে পরিবারের সদস্যরা খবর পেয়ে রামিমকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।
ওই মাদ্রাসার প্রসাশনিক কর্মকর্তা মাহিদুল আলম মাহির জানান, ওই দিন শুধু রামিমকে নয়; আরো সাত ছাত্রীকে পেটানো হয়।
এ বিষয়ে নগরীর শাহমখদুম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী হাসান জানান, মাদ্রাসায় শিশুনির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ইসলামিক বক্তার নির্যাতনে আহত শিক্ষার্থী হাসপাতালে

আপডেট সময় : ০২:২৫:১৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ মার্চ ২০২২

ইসলামিক বক্তার নির্যাতনে আহত শিক্ষার্থী হাসপাতালে

এম এম মামুন, রাজশাহী ব্যুরো:
ইসলামিক বক্তার নির্যাতনে আহত শিক্ষার্থী হাসপাতালে। বহুল আলোচিত-সমালোচিত ইসলামিক বক্তা আব্দুর রাজ্জাক বিন ইউসুফের নাতির বিরুদ্ধে টাকা চুরির অভিযোগ করায় চতুর্থ শ্রেণীর মাদ্রাসার এক শিক্ষার্থীকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে আব্দুর রাজ্জাক বিন ইউসুফের মেজো ছেলে ইসলামিক বক্তা আব্দুর রহমানের বিরুদ্ধে।
নির্যাতনের শিকার ওই শিক্ষার্থীকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে । তবে এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ করা হলেও এখনো কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।
নির্যাতনের শিকার ওই শিশুটির পরিবারের সদস্যরা জানান, ১২ বছর বয়সী রামিম ইসলাম রিফাতকে কোরআনের হাফেজ করার স্বপ্ন নিয়ে রাজশাহী পবার ডাংঙ্গীপাড়া এলাকার আল- জামিথআহ ,আস সালাফিয়া মাদ্রাসা ভর্তি করেন তাঁর পরিবার। কিন্তু মাদ্রাসাটির অধ্যক্ষ আব্দুর রাজ্জাক বিন ইউসুফের নাতির বিরুদ্ধে টাকা চুরি অভিযোগ করায় পাশবিক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন রামিম।বর্তমানে ওই শিশুটি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২৪ নং ওয়ার্ডে অসহ্য ব্যথার যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন।
নির্যাতনের শিকার রামিমের বাবা মেরাজুল ইসলাম রিন্টু জানান, গত ১৬ মার্চ ওই মাদ্রসার দুই শিক্ষার্থীর টাকা হারানোর ঘটনা ঘটে। এসময় আব্দুর রহমানের ভাইয়ের ছেলে এবং ওই মাদ্রসার চতুর্থ শ্রেণীর শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে টাকা চুরির অভিযোগ তুলেন রামিম। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে পাইপ দিয়ে বেপরোয়া পেটাতে থাকেন আব্দুর রহমান।এসময় বেশ কয়েকবার রামিম জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে পরিবারের সদস্যরা খবর পেয়ে রামিমকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।
ওই মাদ্রাসার প্রসাশনিক কর্মকর্তা মাহিদুল আলম মাহির জানান, ওই দিন শুধু রামিমকে নয়; আরো সাত ছাত্রীকে পেটানো হয়।
এ বিষয়ে নগরীর শাহমখদুম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী হাসান জানান, মাদ্রাসায় শিশুনির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।